জামালপুরের আঞ্চলিক ভাষা

আঞ্চলিক ভাষা প্রত্যেক অঞ্চলেরই একটি ঐতিহ্য, ইতিহাস আর সংস্কৃতির সাথে জড়িত। জামালপুরের আঞ্চলিক ভাষাও তেমনি। আমরা এখানে জামালপুরের প্রচলিত-অপ্রচলিত আঞ্চলিক ভাষাগুলো সংরক্ষন করার চেষ্টায় এই ওয়েব পেজটি ধীরে ধীরে সমৃদ্ধ করার চেষ্টা করছি।

কুইড়ে- অলস

কাম কাইজ করস না ক্যা, কুইড়ে কোনাকার

কুড়কা- মুরগি

ইষ্টি আইতাছে, তাড়াতাড়ি কুড়কা ধর

কামাই- উপার্জন

কামাই না থাইকলে, মানুষ মাইয়া বিয়া দিবেননয়

কামলা- শ্রমিক

চুরি করাত থিনো, কামলা দিয়ে খাওয়া ভালা

কয়ান্নুই – বলব না

কয়ান্নুই ক্যা, সত্যি কতা কয়ানই ন্যাগবো

ক-ও-গা – বল গিয়ে

কওগা তাই কি হব?

কাল্লা- মাথা

কাল্লা কাঢা দেখছস জীবনে?

কাউয়া/কাইয়া – কাক

কাইয়ে বাচচা নিয়ে গ্যাছে

কুশের – আখ

আয় দেওয়ানগুঞ্জ যাই, কুশের খামু

ক্যারা ক্যছে- কে বলেছে

তোক ক্যারা ক্যছে, আমি বিয়ে করছি?

কতা- কথা

কি যে কতা কস না?

খায়ানছি- খাচ্ছি

খেদান- সরান

খাইয়ে র- খাবনি

খেতা – কাথা

খেড় – খড়

খাম- খুঁটি

গতর – শরীর

গুনার- পথ

গেতাছে –  যাচ্ছে

গাতা – গর্ত

গেল্লা- শিশু

গেছুন- গিয়াছেন

ঘশি – শুকনো গোবর

ঘুগগু – ঘুঘু (পাখি)

চলা – লাকড়ি

চুককা – টক

ছেমা – ছায়া

জুল্লু জুল্লু – ছোট ছোট

ঝুনঝুনে- পেকে শক্ত। যেমন- ঝুনঝুনে নারিকেল

ট্যাহা- টাকা

ট্যানি – টেনে

টকটহা- উজ্জল

টাসকা- বিস্ময়

ঠ্যাহা- ঠ্যাকা

ঠাহুর- অনুমান

ডাংগর – বড়

ডাট – অহংকার

ঢাসকু- বাক্স

ঢ্যালেনসে- ঢেলছে

ঢক্কর ঢক্কর- কোনমতে

তগর- তোদের

তগর সাতে কতা কমু না

ততা – গরম

ততা ততা কয়ডা খায়ে যান

ত্যাকত্যাকা – নরম

তবন= লুঙ্গি

ত্যালং ত্যালং = আহলাদ

থালি – থালা

দিয়ে র- দিবনি

দাবাড় – ধাওয়া

দুক্কু- ব্যাথা

ধেক্কা- ধাক্কা

ধুব-লাই- ধুয়ে নিবে

ধুয়ানসে- ধুচ্ছে

ন্যাংলে- কৃষিকাজে ব্যবহুত হাতল

ন্যাগলো- লাগলো

নিবেনছে- নিচ্ছে

নিব-লাই- নিয়ে নিবে

পাট- পাট/নাইল্যা/নালিতা

ফটফটা – পরিস্কার

বেহের- সবার

বাইডেগ- বাহির বাড়ি

বিয়েনা- সকাল

ভাতার- স্বামী
ভালাই- ভালোই

ম্যা-লা- অনেক

মইচ্চে- মারা গেছে

মাঢি- মাটি

মমিসিং- ময়মনসিংহ

যায়ান্নুই- যাবনা

যায়ানছি- যাচ্ছি

রাইত- রাত

লাত্থি- লাথি
লাহান- মত

শুতি আছি- শুয়ে আছি
শনশনা- চিকন/ভঙ্গুর
শিয়েল- শিয়াল

সালুক পাইছে- লোভ পেয়েছে


হয়ান-ন্যাগছে – হচ্ছে
হাল বুয়ায়- হাল চাষ করে

অক্কাম – অকাজ

অগোর – ওদের

আজাইর – অবসর

আন্নে- আপনি

আন্নে কিবা আছুইন?

আংগর- আমাদের

ঢিলা – আলসে

আছুইন- আছেন

ইষ্টি- আত্ত্বীয়

ঈয়া বড়- অনেক বড়

উনতি- ওইখানে
উবায়ানছে- বহন করছেে

ঊনুকে – ওইখানে

এবেই এডা- এমনিতেই

এহনো- এখনো

ওবেই- ওইভাবেই

ওল্লেই- ওগুলোই