নির্যাতনের প্রতিবাদে হনুমানের দল ঘেরাও করল কেশবপুর থানা

যুগান্তর: বাচ্চাকে মারপিট করায় একদল (কালোমুখ বিরল প্রজাতির) হনুমান যশোরের কেশবপুর থানা ঘেরাও করে রাখার ঘটনা ঘটেছে।

রোববার দুপুরে ২০-২৫টি থানার প্রধান ফটকে অবস্থান নেয়। তারা এক পর্যায়ে ডিউটি অফিসারের কক্ষে ঢুকে পড়ে।

কেশবপুর থানার ওসি মো. শাহিন যুগান্তরকে বলেন, একটি মা হনুমান কোলে বাচ্চা নিয়ে প্রথমে থানায় আসে। বাচ্চাকে কেউ মারপিট করে আহত করেছে। এরপর পরই প্রায় ২০-২৫টি হনুমান দলবদ্ধভাবে থানার প্রধান ফটকের সামনে ও ডিউটি অফিসারের কক্ষে অবস্থান নেয়। অবশ্য ঘন্টাখানেক অবস্থানের পর তারা চলে যায়। এসময় তাদের কিছু শুকনো খাবার দেওয়া হয়।

কেশবপুর উপজেলা বন কর্মকর্তা আব্দুল মোনায়েম হোসেন জানান, হনুমান অত্যন্ত স্পর্শকাতর প্রাণী। তাদের ওপর কেউ হামলা করলে তারা দলবদ্ধভাবে এভাবে থানায় যায়। ইতিপূর্বে এ রকম একাধিক ঘটনা ঘটেছে।

তিনি আরো বলেন, শহর ও শহরতলীতে প্রায় ৫ শতাধিক হনুমান রয়েছে। তাদের জন্য প্রতিদিন মাত্র ৩৫ কেজি কলা, ২ কেজি বাদাম ও ২ কেজি পাউরুটি দেয়া হয়। যা প্রয়োজনের তুলনায় একেবারে অপ্রতুল। খাবার না পেয়ে হনুমান মানুষের বসতবাড়ি ও অফিসে ঢুকে পড়ে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *