ইসলামপুরে প্রাথমিক বিদ্যালয়ের টিফিনে খিচুরি বিতরন : বাড়ছে উপস্থিতির হার

মোঃ সোহেল রানা : জামালপুরে ইসলামপুর উপজেলায় দুইটি ইউনিয়নে ২১টি প্রাইমারী স্কুলে ব্রাক স্কুল মিলস ও ডব্লিউ এফ পি এর সহযোগিতা টিফিনের পিরিয়ডের খিচুরি বিতরন করা হয়, এটি পুষ্টিকর ও শরীরকে সুস্থ রাখে । এর ফলে শিক্ষার্থীরা টিফিনের সময় অনাহারে থাকে না, এমনকি তাদের বাহিরের অস্বাস্থ্যকর খোলা খাবার খেত হয় না।

২০১৩ সাল থেকে ব্রাক এর স্কুল মিলস ও ডব্লিউ এফ পি সহযোগিতায় এই খাবার, যে সকল স্কুলগুলোতে বিতরন করা হয় বিগত কয়েক বছর থেকে আগের বছরগুলোর চেয়ে শিক্ষার্থী উপস্থিতির হার বৃদ্ধি পাচ্ছে ও ঝরে পড়া রোধ হচ্ছে। স্কুল মিলস আওতায় স্কুলগুলোর বর্তমান উপস্থিতির হার শতকরা ৯০- ৯৫। একই উপজেলার অন্য স্কুলগুলোর চেয়ে দিন দিন শিক্ষার মানও বৃদ্ধি পাচ্ছে।

শিক্ষার্থীরা জানায়, আমরা প্রতিদিন স্কুলে আসি, পুষ্টিকর খিচুরি খায় ও সুস্থ থাকি । অভিবাবকরা জানান, ছেলে মেয়েরা এখন খিচুরি খেয়ে, তাদের রোগ বালাই কম হয়। এই বিষয়ে প্রধান শিক্ষকের কাছে জানতে চাইলে জানায়,আমরা আগের চেয়ে অনেক উপকৃত। স্কুলে প্রতিদিন শতভাগ শিক্ষার্থী আসে,টিফিনের সময় শিক্ষার্থীরা পালিয়ে যায় না ও পুষ্টিহীনতায় ভুগে না এবং লেখাপড়ার প্রতি আগ্রহ বাড়ছে। ব্রাক স্কুল মিলস এর এরিয়া কো- অর্ডিনেটর মিতালি দাস জানান স্কুল মিলস এর উদ্দেশ হলো দরিদ্র শিক্ষার্থীদের স্কুলমুখী করা ও ঝরে পড়া রোধ করা। এতে আমরা সফলতা অর্জন করেছি।এই কাজের জন্য তিনি সরকারকে এগিয়ে আসার আহবান জানান।

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

1 × two =