দেওয়ানগঞ্জে লকডাউন কার্যকর করতে প্রসাশনের নানা পদক্ষেপ

আজ দেওয়ানগঞ্জ উপজেলায় কার্যকর ভাবে লকডাউন পালিত হয়েছে। আন্তজেলা সড়কগুলিতে তেমন কোন যানবাহন চোখে পরেনি । জনগনের চলাচল ছিল খুব সীমিত। জরুরী প্রয়োজন ছাড়া কেউ ঘর থেকে বের হয়নি । তবে রমযান উপলক্ষে বিভিন্ন বাজার এবং মাছ মাংসের বাজারে ভীড় ছিল লক্ষণীয়।

সকাল থেকেই দেওয়ানগঞ্জ পৌর বাজার সহ পৌর এলাকায় লকডাউন মনিটরিং করছেন দেওয়ানগঞ্জ সার্কেলের অতি: পুলিশ সুপার রাকিবুল হাসান রাসেল, দেওয়ানগঞ্জ মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাব্বত কবির, সহকারি কমিশনার ভূমি এবং নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট মোঃ আসাদুজ্জামান, তদন্ত ওসি মনিবুর রহমান। পুলিশের টহল অব্যাহত ছিল। পুলিশ এবং প্রশাসনের কড়া নজরদারিতে মোটামোটি কঠোরভাবে লকডাউন পালিত হতে দেখা যায়।

তবে রমজান উপলক্ষে ভোগ্যপণ্য নিত্যপ্রয়োজনীয় দ্রব্যের দোকানগুলোতে ক্রেতা-বিক্রেতাদের কিছুটা ভীড় দেখা যায়। এ ছাড়া অন্যান্য দোকান পাট দৃশ্যত বন্ধছিল। এসব পণ্য পরিবহনে অটো চলাচল করতে দেখা গেলেও অন্যান্য যান চলাচল তেমন ছিলনা । তবে ব্যাক্তিগত বাইক চলাচল ছিল চোখে পরার মত। এদিকে রমজান মাসে লকডাউন চলায় অনেক খেটে খাওয়া নিম্নআয়ের মানুষ বিপাকে পড়েছেন। অনেকে যারা দিন আনে দিন খায় তারা কর্ম না থাকায় রমযান মাসে বহু কষ্টে রোজা পালন করছেন। আজকের লকডাউন সম্পর্কে সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোঃ আসাদুজ্জামান বলেন, জনগণ এবং ব্যবসায়ীদের সার্বিক সহযোগিতার কারণে লকডাউন কার্যকর করা সম্ভব হয়েছে এক্ষেত্রে তিনি সাধারণ মানুষকে আরো সচেতন হওয়ার আহবান জানান।

Leave a Reply

Your email address will not be published.