স্বৈরতান্ত্রিক দেশের তালিকায় রাখা দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র-তোফায়েল আহমেদ

বাংলাদেশকে পাঁচ স্বৈরতান্ত্রিক দেশের তালিকায় রাখার বিষয়টি ষড়যন্ত্রের অংশ বলে দাবি করেছেন আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ।জার্মান প্রতিষ্ঠান ‘বেরটেলসম্যান স্টিফটুং’ এর প্রতিবেদনে বাংলাদেশকে পাঁচ স্বৈরতান্ত্রিক দেশের তালিকায় রাখা হয়েছে ।

বাংলাদেশ এখন স্বৈরশাসনের অধীন এবং সেখানে এখন গণতন্ত্রের ন্যূনতম মানদণ্ড মানা হচ্ছে না বলে মন্তব্য করে জার্মান প্রতিষ্ঠান ‘বেরটেলসম্যান স্টিফটুং’ যে প্রতিবেদন দিয়েছে তার পরিপ্রেক্ষিতে শনিবার এ কথা বলেন তোফায়েল আহমেদ।

তিনি বলেন, এটা দেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। জার্মান প্রতিষ্ঠানটি প্রতিবেদনের মধ্য দিয়ে অসত্য তথ্য পরিবেশন করেছে।

দলটির শীর্ষ নেতারা বলেন, ‘যখনি বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নয়নশীল দেশে প্রবেশ করেছে এবং দেশের মানুষ আনন্দ উল্লাস করছে, এই আনন্দকে ম্লান করার জন্যে এ অসত্য সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে।

এ প্রসঙ্গে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদের সদস্য ও বাণিজ্যমন্ত্রী তোফায়েল আহমেদ  বলেন, ‘এ ধরনের প্রতিবেদন বাংলাদেশের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্র। যখনি বাংলাদেশ স্বল্পোন্নত দেশ থেকে উন্নত দেশে প্রবেশ করেছে এবং দেশের মানুষ আনন্দে উদ্বেলিত-এই আনন্দকে ম্লান করার জন্যে এ অসত্য সংবাদ পরিবেশন করা হয়েছে। যারা মুক্তিযুদ্ধের সময় থেকে আমাদের অগ্রযাত্রা মেনে নিতে পারেনি, আমাদের মুক্তিযুদ্ধ-স্বাধীনতা-অগ্রগতি-উন্নয়নকে তুচ্ছ-তাচ্ছিলের চোখে দেখেছে, তাদের ষড়যন্ত্রের অংশ এই প্রতিবেদন। তারা রিপোর্টে অসত্য তথ্য পরিবেশন করেছে। এ ধরনের গবেষণা বাংলাদেশ প্রত্যাখান করেছে।’

উল্লেখ্য, জার্মান প্রতিষ্ঠান ‘বেরটেলসম্যান স্টিফটুং’ শুক্রবার এই প্রতিবেদন প্রকাশ করে। রিপোর্টে ১২৯টি দেশের মধ্যে ৫৮টি দেশ এখন স্বৈরশাসনের অধীনে এবং ৭১টি দেশকে গণতান্ত্রিক বলে বলা হয়েছে। রিপোর্টে বলা হচ্ছে, এই পাঁচটি দেশ এখন আর গণতন্ত্রের ন্যূনতম মানদন্ড পর্যন্ত মানছে না। এসব দেশে বহু বছর ধরেই গণতন্ত্রকে ক্ষুন্ন করা হচ্ছিল। এসব দেশের ত্রুটিপূর্ণ নির্বাচনী ব্যবস্থার কারণেই এটা ঘটেছে বলে মন্তব্য করা হয় রিপোর্টে।

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

four + 17 =