একজন ডা. ফজলুল হক ও ইডেন মাল্টিকেয়ার হাসপাতাল

ডা. একেএম ফজলুল হক সম্পর্কে জানতে পারি মূলত বিভিন্ন টেলিভিশন চ্যানেলে প্রচারিত অনুষ্ঠানে তার জ্ঞানগর্ভ, আন্তরিক আর হাসিমাখা মুখের আলোচনা শুনে। তিনি লিখে থাকেন বাংলাদেশ ও উপমহাদেশের প্রথম কোলাক্টেরল সার্জন তিনি আর সেই সাথে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয় এর কলোরেকটাল সার্জারী বিভাগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যানও ছিলেন। তার নামের পাশেও রয়েছে নানা দেশী-বিদেশী ডিগ্রী। যাই হোক ইন্টারনেটে খোঁজাখোজি করলে কোলাক্টরাল বিষয়টার উপর যতগুলো লেখা বা ভিডিও পাওয়া যায় তার অনেকটা জুড়েই আছেন তিনি। কাজেই এক নিকটাত্মীয়ের কোলাক্টরল সমস্যা প্রথম এবং একমাত্র পছন্দেই তার হাসপাতালের সাথে যোগাযোগ করি।

তার চেম্বারে গিয়ে সিরিয়াল নিতে হয় ফোনে কোন সিরিয়াল নেননা। প্রথম দিন গিয়ে সিরিয়াল দিয়ে ফেরত আসতে হয়। কারন রোগীর সংখ্যা ছিল বেশী। পরের দিন আবারো গেলে তিনি এক মিনিট দেখেই কোন কিছু না লিখে ধরিয়ে দেন কোলনোস্কপি। আরেকদিন আসতে হয় কোলনোস্কপি করার জন্য। সেদিন কোলনোস্কোপি করার পর তিনি বলেন অ্যানাল ফিশার এবং অপারেশন করতে হবে। তার জন্য লাগবে ৬০ হাজার টাকা। এর আগে তার যতগুলো লেখা ও বক্তব্য আছে সবগুলোতে শুনেছি অত্যন্ত ছোট আর সহজ অপারেশন এটি।অপারেশনে সময় লাগে মাত্র কয়েক মিনিট (লেগেছেও তাই)। আর তার জন্য ৬০ হাজার টাকা! যাই-হোক আরেকদিন এসে রোগীকে ভর্তি করালাম। রাতে অপারেশন করানো হল। দুই দিন পর রোগীকে ছাড়পত্র দেওয়া হয়।

তার যোগ্যতা, দক্ষতা কোন কিছু নিয়েই আমার অভিযোগ বা সন্দেহ নাই কিন্তু একজন এত উঁচুমাপের ডাক্তারের কাছে গিয়ে কিছু বিষয় খটকা লেগেছে। যেমন, টিভিতে তাকে যে ধরনের আন্তরিক, মানবিক ও নিপাট ভদ্রলোক মনে হয় বাস্তবে তার সাথে মিল খুঁজতে গেলে হতাশ হবেন। দ্বীতিয়ত, ইডেন মাল্টিকেয়ার নামক তার মালিকানাধীন হাসপাতালটির সেবার মান একটি উপজেলা পর্যায়ের ক্লিনিকের চেয়ে বেশী ভালো আশা করলেও হতাশ হবেন। তৃতীয়ত, হাসপাতালের পরিবেশ, পরিচ্ছন্নতা, ডাক্তার, এমনকি কর্মচারীদের ব্যবহার সবকিছু মিলে পাঁচের মধ্যে ১ এর বেশী নাম্বার কেউ দিবে না। চতুর্থত, সাথে নিয়ে যাবেন কাড়ি কাড়ি টাকা। সর্বনিম্ম এক লাখ টাকা না নিয়ে এখানে গেলে চিকিৎসা চোখেও দেখার সম্ভাবনা নাই।

লেখক- নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক

This is a bangla article about experience of treatment of eden multicare hospital and dr. akm fazlul haque. this is only a experience, actual condition may different from writers view. if any complain mail us to jamalpurbarta247@gmail.com

 

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

12 − three =