৫৩৩সীটের টিকেট ইসলামপুর স্টেশন মাস্টারের অালমারিতে ! “এরা অমানুষ” বললেন ক্ষুদ্ধ যাত্রীরা

ইসলামপুর, দেওয়ানগঞ্জ ও মেলান্দহ স্টেশনের জন্য বরাদ্দকৃত  তিস্তা ও  ব্রহ্মপুত্রের ৫৩৩ টি সীটের ৪৭৪ টি টিকেট উদ্ধার করা হল ইসলামপুর স্টেশনের আলমারী ভেঙ্গে !  রেলওয়ের টিকিট কালোবাজারী রোধে ঢাকা রেলওয়ের সহকারী বানিজ্যিক কর্মকর্তা মো: খাইরুল ইসলামের নেতৃত্বে রেলওয়ের একটি দল অাজ ২৪-০৪-২০১৮ইং মঙ্গলবার দুপুরে ইসলামপুর রেলওয়ে স্টেশনে নিয়মিত অভিযান পরিচালনা করেন।

মো: খাইরুল ইসলাম প্রথমে ইসলামপুর স্টেশনে এসে  স্টেশন কার্যালয়ে ব্যপক তল্লাসী চালান। এক পর্যায়ে তারা স্টেশনের অালমারী ভেঙ্গে তল্লাশি করে তিস্তা ও ব্রহ্মপুত্র ট্রেনের ৫৩৩টি সীটের ৪৭৪টি টিকিট উদ্ধার করেন।  ওই ৪৭৪টি টিকিট উদ্ধারের পর তা জব্দ করা হয়।

এ ঘটনায় ক্ষুদ্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন যাত্রীরা, সেখানে সবাই চিৎকার করে বলতে থাকেন,  “এরা অমানুষ, নীচু কীট, দশ দিন আগে লাইনে দাড়িয়েও আমরা সীট পাইনা, অার এরা টিকিট কালোবাজারে বেচে লাখ লাখ টাকা আয় করে ”  একই সময় অবৈধ টিকিট সংগ্রহকারী স্টেশন মাষ্টারগনের শাস্তির দাবীতে  বিক্ষোভ করেন যাত্রীরা । 


রেলওয়ের একজন কর্মকর্তা জানিয়েছেন, জব্দকৃত ৪৭৪টি টিকিট অবৈধভাবে সংরক্ষণ করেছেন ইসলামপুর স্টেশন মাষ্টার অামিনুল ইসলাম ও অাবুল কালাম। তারা দুইজন অবৈধভাবে টিকিট নিজেদের সংরক্ষণে রেখে স্থানীয় টিকিট কালোবাজারীদের মাধ্যমে দীর্ঘদিন যাবত অবৈধভাবে লাখ টাকা হাতিয়ে নিচ্ছিলেন। স্থানীয়রা এব্যপারে বিভিন্ন দপ্তরে অসংখ্য অভিযোগ করেছেন ।

তবে অভিযুক্ত  ইসলামপুর রেল স্টেশন মাষ্টার অামিনুল ইসলাম জানান,  ভিঅাইপি যাত্রীদের অনুরোধে অাগাম টিকিট সংগ্রহ করে রাখা হয়েছিল। তবে সরকারী অর্থ অাত্মসাতের কোন ঘটনা ঘটেনি।

 

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

eighteen + two =