ইসলামপুরে জে.জে.কে.এম. গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজ জাতীয়করণের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন

শফিকুর রহমান শিবলী, ইসলামপুর প্রতিনিধি : জামালপুর জেলার ইসলামপুরে সর্ববৃহৎ শতবর্ষের প্রাচীনতম নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান ইসলামপুর জে.জে.কে.এম.গার্লস হাইস্কুল এন্ড কলেজ জাতীয়করণের দাবীতে সংবাদ সম্মেলন ও মানববন্ধন করেছে শিক্ষক.শিক্ষার্থী ও গর্ভনিং বডির সদস্যবৃন্দ।

রবিবার সকালে ওই শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের অধ্যক্ষের অফিস কক্ষে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন অধ্যক্ষ আব্দুস সালাম চৌধুরী। তিনি ১৯১৭ সালে প্রতিষ্ঠিত সর্ববৃহৎ শতবর্ষী নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের বিভিন্ন দিক তুলে ধরে বক্তব্য রাখেন। উপজেলা সদরের শতাব্দীর প্রাচীনতম একমাত্র নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। পরপর তিন বছর জাতীয় স্কাউটস-এ প্রেসিডেন্ট অ্যাওয়ার্ড প্রাপ্ত, জাতীয় ক্রীড়া প্রতিযোগিতায় চ্যাম্পিয়ন, নারীর ক্ষমতায়নের বাল্য বিবাহ রোধ ও বিভিন্ন দিবসে প্রতিষ্ঠানটি অগ্রনী ভ’মিকা পালন করছে।

প্রতিষ্ঠানটিতে মাধ্যমিক স্কুল, কলেজ, ভোকেশনাল এবং এইচ.এস.সি (বি.এম) সহ চারটি শাখা বিদ্যমান রয়েছে। বর্তমানে ২২১৮ জন শিক্ষার্থী ও ৬৫ জন শিক্ষক শিক্ষিকা কর্মরত রয়েছেন । চারতলা ভবন, দুইটি দ্বিতল ভবনসহ ৭টি ভবন এবং ছাত্রী হোস্টেল, লাইব্রেরী, বিজ্ঞানাগার ও সুসজ্জিত কম্পিউটার ল্যাব রয়েছে।

প্রতিষ্ঠানটির নিজস্ব জমির পরিমাণ ২.৮০ একর। শতবর্ষের প্রাচীনতম নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, প্রয়োজনীয় অবকাঠামো, জেলার সর্বাধিক শিক্ষার্থী, উপজেলার সর্বোচ্চ ফলাফল, অনগ্রসর জনপদ এবং দক্ষ শিক্ষকমন্ডলীর বিবেচনায় উপজেলায় কোন সরকারী নারী শিক্ষা প্রতিষ্ঠান না থাকায় জাতীয়করণের দাবী রাখেন।

এসময় বিদ্যালয়ের ম্যানেজিং কমিটির সদস্য আঃ কাসেম, হেলাল উদ্দিন,উপজেলা আওয়ামীলীগ তথ্য বিষয়ক সম্পাদক আলম মিয়া, সুধীজন এবং অত্র প্রতিষ্ঠানের শিক্ষকবৃন্দরা উপস্থিত ছিলেন ।

পরে জাতীয়করনের দাবীতে প্রতিষ্ঠানটির সামনে সড়কে ঘন্টাব্যাপী মানববন্ধনে সহশ্রাধিক শিক্ষার্থীরা অংশ নেয়। মানববন্ধব শেষে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার নিকট স্মারকলিপি প্রদান করা হয়।উল্লেখ্য প্রতিষ্ঠানটি জাতীয়করনের জন্য স্থানীয় সংসদসদস্য আলহাজ¦ ফরিদুল হক খান ডিও পত্রও প্রদান করেছিলেন্।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

thirteen + 10 =