আবদুস সালাম তালুকদারের মৃত্যুবার্ষিকীর আয়োজনে হামলা : পণ্ড বিএনপির কাঙালিভোজ

প্রথম আলো : মুল লেখার লিংক : জামালপুরের সরিষাবাড়ীর মহাদান ইউনিয়নে গতকাল মঙ্গলবার বিএনপির এক পক্ষের আয়োজিত কাঙালিভোজের অনুষ্ঠানে হামলা হয়েছে। হামলায় দলীয় প্রতিপক্ষের পাশাপাশি স্থানীয় আওয়ামী লীগের কিছু নেতা-কর্মীও অংশ নেন বলে অভিযোগ উঠেছে।

তবে মহাদান ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও ইউপির চেয়ারম্যান আনিছুর রহমান বলেন, দলীয় কোন্দলের কারণেই বিএনপির এক পক্ষ অপর পক্ষের অনুষ্ঠানে হামলা করেছে। এ ঘটনায় আওয়ামী লীগের কেউ জড়িত নয়।

উপজেলার মহাদান ইউনিয়নের সানাকৈর বাজার এলাকায় গতকাল দুপুরে বিএনপির দুটি পক্ষ পৃথক স্থানে এ কাঙালিভোজের আয়োজন করে। এ অনুষ্ঠানের উপলক্ষ ছিল দলটির সাবেক মহাসচিব আবদুস সালাম তালুকদারের ১৮তম মৃত্যুবার্ষিকী।

দলীয় সূত্রে জানা যায়, মহাদান ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবদুল ওয়াহাব সানাকৈর বাজারে নিজের চালকলের মাঠে কাঙালিভোজের আয়োজন করেন। অন্যদিকে উপজেলা বিএনপির যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক লানজু মিয়া একই বাজারে রাজ্জাকের বাড়ির পাশে কাঙালিভোজের আয়োজন করেন। বেলা একটার দিকে লানজু মিয়ার কাঙালিভোজের অনুষ্ঠানে হামলা হয়।

লানজু মিয়া অভিযোগ করে বলেন, হামলায় বিএনপির নেতা আবদুল ওয়াহাবের লোকজনের পাশাপাশি স্থানীয় আওয়ামী লীগের সমর্থকেরাও জড়িত। হামলার মুখে তাঁর সমর্থকেরা দৌড়ে পালিয়ে গেলে অনুষ্ঠান পণ্ড হয়ে যায়।

হামলাকারীরা অনুষ্ঠানস্থলে অর্ধশতাধিক চেয়ার ভাঙচুর করে। হাঁড়িপাতিলসহ রান্নার বিভিন্ন সরঞ্জাম ভাঙচুর ও সেগুলো উল্টে ফেলে খাবার নষ্ট করা হয়। এ ছাড়া যুবদল কর্মী রিপন মিয়া (২৫) ও জুয়েল মিয়াকে (২৮) পিটিয়ে আহত করা হয়।

 ইউনিয়ন বিএনপির সভাপতি আবদুল ওয়াহাব অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন, ‘আমাদের দলের কিছু উচ্ছৃঙ্খল নেতা-কর্মী ওই কাঙালিভোজের আয়োজন করেছিল। কিন্তু কে বা কারা হামলা করেছে, তা আমি জানি না।’

সরিষাবাড়ী থানার ওসি মো. রেজাউল ইসলাম খান বলেন, খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে।

মন্তব্য করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

six + two =